Ekhon TV :: এখন টিভি

সংকটে দাম বেড়েছে দাবি ব্যবসায়ীদের

আদা-রসুনের দাম কেজিতে বেড়েছে ৪০ টাকা

আদা-রসুনের দাম কেজিতে বেড়েছে ৪০ টাকা

খাতুনগঞ্জে বেড়েছে আদা-রসুনের দাম

০৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৭:৫৩

কাজী মাহফুজ , এখন টিভি

চীন থেকে আমদানি করা আদায় দেশের ৬০-৭০ শতাংশ চাদিহা পূরণ হয়। বাকী ৪০ শতাংশ আদা আসে মিয়ানমার ও ভারত থেকে, তার সাথে যোগ হয় দেশি আদা।

বছরব্যাপী বাজার দখলে রাখে চায়না আদা। কিন্তু হঠাৎ খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে চায়না আদার সংকট দেখা দিয়েছে।

আমদানি না হওয়ায় গত এক সপ্তাহে সরবরাহ সংকট তৈরি হয়েছে বলে দাবি আড়তদারদের। এতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৭০ টাকায়। আড়তে চায়না আদা না থাকায়, আপাতত মিয়ানমার বা দেশি আদা দিয়ে চাহিদা মেটাচ্ছেন দোকানিরা। এসব আদারও দাম বেড়েছে কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা।

একজন আড়তদার এখন টেলিভিশনকে জানান, মার্কেটে কোনো দেশি পণ্যই নাই। যা আছে তা হলো চায়নার পণ্য। দীর্ঘদিন এলসি করতে না পারায় এই রকম হয়েছে। 

একই অবস্থা রসুনের বাজারেও। দেশে রসুনের চাহিদার সিংহভাগ পূরণ করে চায়না রসুন। আকারে বড় ও দীর্ঘদিন ভালো থাকায় এই রসুনের চাহিদা বেশি। 

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে লোকসান গুনায় অনেকে চায়না আদার আমদানি বন্ধ রেখেছেন। এতে সরবরাহ সংকটে দাম বেড়েছে কেজিতে ৩০ টাকা। গত সপ্তাহে ১০০ টাকায় বিক্রি হওয়া রসুন এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকায়।

খাতুনগঞ্জের একজন রসুন বিক্রেতা বলেন, 'সরবরাহ কমার কারণে গ্যাপ পড়েছে। সেই গ্যাপের কারণেই এই সংকট। যার কারণে দাম উঠানামা করছে।'

চলতি অর্থবছরের প্রথমার্ধে শুধুমাত্র সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে একশো কোটি টাকার বেশি রসুন আমদানি হয়েছে।

আরএন

Advertisement
Advertisement
Advertisement