Ekhon TV :: এখন টিভি

দুর্গম পাহাড়ে সেনাবাহিনীর সড়কের কাজ দ্রুত এগোচ্ছে

দুর্গম পাহাড়ে সেনাবাহিনীর সড়কের কাজ দ্রুত এগোচ্ছে

এই সড়কে তিন পাহাড়ি জেলা রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান সংযুক্ত হবে

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪:৫৪

জিয়াউর জুয়েল , এখন টিভি

দ্রুত এগিয়ে চলছে রাঙামাটির সীমান্ত সড়কের নির্মাণকাজ। প্রথম পর্যায়ে ৩১৭ কিলোমিটার সড়কের কাজ চলমান। যা শেষ হবে আগামী বছরের জুনে। এই সড়ক নির্মাণ হলে তিন পাহাড়ি জেলা রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান সংযুক্ত হবে। একইসাথে গতি আসবে ব্যবসা-বাণিজ্যেও। 

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে কয়েক হাজার ফুট উপরে তিন পার্বত্য জেলা। পাহাড়ে সীমান্তবর্তী এলাকাগুলো দুর্গম আর যাতায়াত ব্যবস্থা কঠিন। নেই খাবার পানি, মোবাইল নেটওয়ার্ক। এ অবস্থায় সীমান্ত সুরক্ষা, নিরাপত্তা আর তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে আন্তঃসংযোগ গড়ে তোলার লক্ষ্যে দুর্গম সীমান্তে নির্মিত হচ্ছে ১ হাজার ৩৬ কিলোমিটার সড়ক।

সবুজ পাহাড়ের বুক চিরে এগিয়ে চলছে দৃষ্টিনন্দন সীমান্ত সড়কের কাজ। প্রথম পর্যায়ে ৩১৭ কিলোমিটারের মধ্যে রাঙামাটি অংশে রাজস্থলী উপজেলা থেকে ভারতের মিজোরামের সীমান্তবর্তী দুর্গম দুমদুম্যা পর্যন্ত সড়ক নির্মাণ এগিয়ে চলেছে দ্রুতগতিতে। ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে ৯৫ কিলোমিটার সড়কের কাজ। বাকি কাজ শেষ হবে ২০২৪ সালের জুনে।

সীমান্ত সড়কের মাধ্যমে দুর্গম এলাকায় উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারজাতকরণ সহজ হবে। বদলে যাবে এলাকার মানুষের অর্থনৈতিক জীবনমান।

স্থানীয় একজন বলেন, এখানে স্কুলে যাতায়াতে সমস্যা হয়। ছেলে-মেয়েরা লেখাপড়া করতে পরে না। এই রাস্তা হওয়াতে আমাদের খুব সুবিধা হবে।

রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, এই সড়ক হয়ে গেলে বর্ডার ট্রেড শুরু হবে। এতে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার ব্যবসা-বাণিজ্যসহ মানুষের অর্থনৈতিক উন্নয়ন হবে।

নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করার আশা সেনাবাহিনীর।

২৬ ইসিবি কমান্ডার কর্নেল এইচ এম মোহাইমিন বিল্লাহ চৌধুরী বলেন, সীমান্ত সড়ক প্রকল্পটি সঠিক সময়ে এবং সঠিক গুণগত মান নিশ্চিত করে সম্পন্ন করা হচ্ছে। সম্মানিত সেনাপ্রধানের দিকনির্দেশনা অনুযায়ী এই প্রকল্পটি ২০২৪ সালের মাঝামাঝি সম্পন্ন করা হবে।

সেনাপ্রধান  এসএম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেন, আমরা যেভাবে আগাচ্ছি তাতে সময়ের যে টার্গেট দেয়া হয়েছে তার মধ্যেই গুণগত মান ঠিক রেখে আমরা কাজ শেষ করতে পারবো।

২০১৮ সালে একনেকে পাশ হয় সীমান্ত সড়ক নির্মাণ প্রকল্প। আর কাজ শুরু হয় ২০১৯ সালে।

এমএস

Advertisement
Advertisement
Advertisement